বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

সিলেটে অনুষ্টিত হলো রোমাঞ্চকর সাইকেল রেইস


বিশ্বের বহুদেশে মাউন্টেন সাইক্লিং বেশ জনপ্রিয়। পাহাড়েরর রাস্তায় বা উচু টিলায় করা হয় এই মাউন্টেন সাইক্লিং। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই মাউন্টেন সাইকেল রেইসের আয়োজন করা হয়ে থাকে।

এবার সিলেটে চতুর্থবারের মতো সিলেট সাইক্লিং কমিউনিটির আয়োজনে শুক্রবার (১৯ মার্চ) সকাল ৭টায় মালনিছড়া চা বাগানে সুপারক্রিট এমটিবি সাইকেল রেইস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রেইসের দুই বিভাগে সারা দেশের ১১৫জন রেসার এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করেন।

নারী বিভাগে ১০জন রেইসার প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। পুরুষদের জন্য ২৫ কিলোমিটার আর নারীদের জন্য ছিল ১৭ কিলোমিটার। পুরুষ বিভাগে বিজয়ী হলেন, মাহতাব ইবনে আজাদ (প্রথম), দ্বিতীয় হয়েছেন মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন ও তৃতীয় হয়েছেন তাহসিন আহমদ।

নারী বিভাগে প্রথম হয়েছেন সাদিয়া সিদ্দিকী, দ্বিতীয় হয়েছেন মনিকা সিনহা এবং তৃতীয় হয়েছেন দোলা বড়ুয়া। এই প্রতিযোগিতার পৃষ্টপোষকতায় ছিলো সুপারক্রিট সিমেন্ট। প্রতিযোগিতার বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন আলী কামাল সুমন, নুসরাত জাহান, রাফি শাহ এবং মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

অুনষ্ঠানে প্রধান অথিতি ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরশনের মেয়র আরফিুল হক চৌধুরী। প্রধান অথিতির বক্তব্যে মেয়র বলেন, সাইক্লিং এখন সবার কাছে খুব প্রিয় হয়ে উঠেছে। আমার কাছে বেশ ভালো লাগে, যখন দেখি তরণরা দলবেধে সাইক্লিং করছে।

সাইক্লিং করার মাধ্যমে ভালো শরীর চর্চা হয়, মানুষ সুস্থ থাকে তাই আমরা সাইক্লিংকে এগিয়ে নিতে চাই। রেস শেষে সকাল ১০টায় বিজয়ীদের হাতে নগদ টাকা, সার্টিফিকেট ও ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়। এছাড়াও অংশগ্রহণকারী সকল রেইসারদের মেডেল দেয়া হয়।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন এহ্তেশাম চৌধুরী (হেড অফ মার্কেটিং লাফাজ হোলসিম বাংলাদেশ লি.), জাফর সাদেক (রিজিওনাল হেড, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লি.)। রেইস পরিচালনায় ছিলেন ডা. ওরাকাতুল জান্নাত, রেইসের বিভিন্ন পর্যায়ে দায়িত্বে ছিলেন সিলেট সাইক্লিং কমিউনিটির এডমিন সৈয়দ সুহাগ, কাজী ওহিদ,হাসান আহমেদ, কামরুল ইসলাম এবং আবু সালেহ।


অন্যান্য খবর

বার্তাবাহক সর্বশেষ

উপরে